Advertisements

হরতাল অনুচ্ছেদ | এসএসসি বাংলা ২য় পত্র

Author:

Published:

Updated:

অফিস ছুটির জন্য আবেদন
Advertisements

হরতাল অনুচ্ছেদ | এসএসসি বাংলা ২য় পত্র

Rate this post

হরতাল অনুচ্ছেদ

হর’তাল শব্দের আভিধানিক অর্থ বন্ধ। ব্যাপক অর্থে হ’রতালের মানে হলো অন্যায়ের প্রতিবাদ প্রকাশের জন্য দোকান, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও যোগাযোগব্যবস্থা সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা। বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রাজনীতিবিদদের ভাষায় ‘হরতাল’ বা ‘ধর্মঘট’ গণতন্ত্রের ভাষা। কিন্তু এটি কেবল রাজনৈতিক পরিমণ্ডলেই সীমাবদ্ধ নয়। কথা বলার অধিকার ও শ্রমের বিনিময়ে আর্থিক পাওনা ন্যায্যভাবে আদায় করার বিশেষ পদ্ধতি বা প্রক্রিয়ার নামই হলো হর’তাল।

পৃথিবীতে সর্বপ্রথম কোথায় হর’তাল পালন শুরু হয় তার সঠিক ইতিহাস জানা না গেলেও বলা যায়, ১৮২৭ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফিলাডেলফিয়ার গৃহনির্মাণ শ্রমিকেরা কাজের সময় কমিয়ে আট ঘণ্টা করার দাবিতে যে আন্দোলন করে তা-ই হ’রতাল ও ধর্মঘট হিসেবে স্বীকৃত। শাসকের বিরুদ্ধে শোষিতের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে সংগ্রামের একটি অন্যতম হাতিয়ার হলো হ’রতাল।

কলকারখানা, শিল্প- প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের দাবি আদায়ের জন্য হ’রতাল পালিত হয়। গণতান্ত্রিক দেশগুলোতে বিরোধী দল সরকারের নানা কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ার জন্য হ’রতাল কর্মসূচি দিয়ে থাকে। একসময় দাবি আদায়ে হরতালের আন্দোলন কর্মসূচি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। এ ক্ষেত্রে উদাহরণ হিসেবে বলা যেতে পারে বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভের আগে বিভিন্ন দাবি আদায়ের লক্ষ্যে যেসব আন্দোলন বা হ’রতাল হয়েছে তার কথা।

কিন্তু বর্তমানে হর’তাল নাম শুনলেই জনগণ আতঙ্কিত হয়ে ওঠে। অতীত ও বর্তমানের আলোকে হ’রতাল কর্মসূচিতে ভালো-মন্দ দুটো দিকই পরিলক্ষিত হয়। গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ের বৈধ হাতিয়ার হলো হ’রতাল। কিন্তু বর্তমানে হ’রতাল স্বচ্ছতা ও নিরপেক্ষতা হারিয়েছে। সাধারণ মানুষ এখন আর হ’রতাল কর্মসূচি গ্রহণ করতে রাজি নয়। কারণ বর্তমানে যেসব হ’রতাল পালিত হয় তা কেবল রাজনৈতিক কারণেই হয়। আর তাতে সর্বস্তরের মানুষের কোনো মঙ্গল থাকে না। জাতির গভীর সংকট উপলব্ধিতে অক্ষম একশ্রেণির সুবিধাভোগী রাজনৈতিক ব্যক্তিই মূলত এজন্য দায়ী।

হরতাল অনুচ্ছেদ
হরতাল অনুচ্ছেদ

হরতাল কি ?

হর’তাল  একটি গুজরাটি শব্দ। এর আভিধানিক অর্থ বন্ধ বা বন্ধ করে দেওয়া। প্রাথমিক পর্যায়ে হর’তাল ছিল ব্যবসায়ীদের কারবার সংক্রান্ত দাবিদাওয়া আদায়ের লক্ষ্যে চাপ সৃষ্টি ও প্রতিবাদ প্রকাশের কৌশল হিসেবে দোকানপাট, গুদামঘর প্রভৃতি বন্ধ রাখা। ১৯২০ ও ১৯৩০-এর দশকে ভারতের রাজনীতিতে হরতাল নতুন মাত্রা যোগ করে। এসময় মহাত্মা গান্ধী তাঁর নিজ এলাকা গুজরাটে পরপর অনেকগুলো ব্রিটিশ বিরোধী বন্ধ বা ধর্মঘটের ডাক দিয়ে হরতালকে একটি রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানের রূপ দেন। বাংলাদেশে হ’রতাল জনগণের দাবি আদায়ের জন্য আন্দোলনের একটি সাংবিধানিকভাবে স্বীকৃত রাজনৈতিক পন্থা।

 

আরও পড়ুন……

Advertisements


Related Posts

About the author

Advertisements

One response to “হরতাল অনুচ্ছেদ | এসএসসি বাংলা ২য় পত্র”

  1. […] হরতাল অনুচ্ছেদ | এসএসসি বাংলা ২য় পত্র […]

Advertisements

Leave a Reply

Advertisements
Back to top arrow
হিট স্ট্রোক কেন হয় ? হিট স্ট্রোক থেকে বাঁচার উপায় প্রতিদিনের শিক্ষামূলক ছোট হাদিস | শবে কদরের রাতে যেভাবে আমল করবেন #১৩ প্রতিদিনের শিক্ষামূলক ছোট হাদিস | শবে কদরের আমল সমূহ | শবে কদরের আমল কি কি #১২ প্রতিদিনের শিক্ষামূলক ছোট হাদিস | কীভাবে ইস্তিগফার করবেন | কিভাবে আল্লাহর কাছে গুনাহ মাফ চাইবেন? #১১ How do I introduce myself in just 100 words?
হিট স্ট্রোক কেন হয় ? হিট স্ট্রোক থেকে বাঁচার উপায় প্রতিদিনের শিক্ষামূলক ছোট হাদিস | শবে কদরের রাতে যেভাবে আমল করবেন #১৩ প্রতিদিনের শিক্ষামূলক ছোট হাদিস | শবে কদরের আমল সমূহ | শবে কদরের আমল কি কি #১২ প্রতিদিনের শিক্ষামূলক ছোট হাদিস | কীভাবে ইস্তিগফার করবেন | কিভাবে আল্লাহর কাছে গুনাহ মাফ চাইবেন? #১১ How do I introduce myself in just 100 words?
হিট স্ট্রোক কেন হয় ? হিট স্ট্রোক থেকে বাঁচার উপায় প্রতিদিনের শিক্ষামূলক ছোট হাদিস | শবে কদরের রাতে যেভাবে আমল করবেন #১৩ প্রতিদিনের শিক্ষামূলক ছোট হাদিস | শবে কদরের আমল সমূহ | শবে কদরের আমল কি কি #১২ প্রতিদিনের শিক্ষামূলক ছোট হাদিস | কীভাবে ইস্তিগফার করবেন | কিভাবে আল্লাহর কাছে গুনাহ মাফ চাইবেন? #১১ How do I introduce myself in just 100 words?
Enable Notifications OK No thanks